ভুটান ভ্রমণে ব্যয় বাড়ছে বাংলাদেশি পর্যটকদের

পারো, ভুটান। ছবি: ট্রাভেল টক

বাংলাদেশ, ভারত ও মালদ্বীপের পর্যটকদের জন্য ভিসার নিয়মে পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে প্রতিবেশী দেশ ভুটান। এসব দেশের পর্যটকদের জন্য ভুটান ভ্রমণে ভিসা ফি ও উন্নয়ন ফি বাবদ প্রতিদিনের জন্য গুনতে হবে ১০৫ মার্কিন ডলার।

বর্তমানে এই তিনটি দেশের পর্যটকদের ভুটান ভ্রমণে কোনো ফি দিতে হয়না। আগামি ডিসেম্বরে দেশটির কেবিনেটে এ সংক্রান্ত বিলটি পাশ হলে সেখানে ভ্রমণে খরচ বেড়ে যাবে এই তিন দেশের পর্যটকদের।

ভুটানের ট্যুরিজম কাউন্সিলের পরিচালক দরজি ধেরাধুলের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া এ তথ্য জানায়।

জানা গেছে, প্রস্তাবিত ১০৫ ডলার মধ্যে টেকসই উন্নয়ন ফি হিসেবে ৬৫ ডলার ও পারমিট প্রসেসিং ফি হিসেবে ৪০ ডলার রয়েছে। বিশ্বের অন্যান্য দেশের পর্যটকদের ভুটান ভ্রমণে প্রতিদিন ২৫০ ডলার করে ফি দিতে হয়।

একজন বাংলাদেশি পর্যটকের জন্য ভুটান ভ্রমণে ভিসা ফি দিতে হবে ৩,৪০০ টাকা। এছাড়া যতদিন অবস্থান করবে ততদিনের জন্য দিন প্রতি টেকসই উন্নয়ন ফি দিতে হবে ৫,৫০০ টাকা করে। সে হিসেবে সর্বনিম্ন তিন দিনের ভ্রমণে একজন পর্যটকের শুধুমাত্র ফিস বাবদ প্রায় ২০ হাজার টাকা খরচ হবে।

ভুটান ট্যুরিজম কাউন্সিলের তথ্য অনুয়ায়ী ২০১৮ সালে দেশটিতে ভারতীয় ও বাংলাদেশি পর্যটকের সংখ্যা ছিল যথাক্রমে ১ লাখ ৯১ হাজার ও ১০ হাজার ৪৫০ জন। অপরদিকে সারা বিশ্ব থেকে দেশটিতে একই বছরে ভ্রমণ করেন ৭০ হাজার জন পর্যটক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *