প্রকৃতির কোলে অরুনিমা রিসোর্ট

অরুনিমা রিসোর্টে অপরূপ সন্ধ্যা। ছবি: ট্রাভেল টক

শহরের কোলাহল ছেড়ে নিরিবিলি কোথাও বসে পাখির ডাক শুনতে চান? কিংবা শহুরে সব ঝামেলাকে পিছু ফেলে কিছুটা সময় একান্ত করে কাটাতে চান প্রাণ-প্রকৃতির মাঝে? দু এক দিনের সময় বের করে তাহলে ঘুরে আসতে পারেন অরুনিমা রিসোর্ট অ্যান্ড গলফ ক্লাব থেকে।

নড়াইলের কালিয়া উপজেলার পানিপাড়ায় মধুমতির তীরে প্রায় ৫০ একর জায়গাজুড়ে গড়ে তোলা হয়েছে সবুজের স্বর্গ। জেলা শহর থেকে এর দূরত্ব প্রায় ৪০ কিলোমিটার। সবুজের বাঁকে বাঁকে অরুনিমাজুড়ে আছে বড় বড় জলাশয়।

নড়াইলের পানিপাড়া গ্রামের প্রকৃতি। ছবি: ট্রাভেল টক

অরুনিমার জলাশয়গুলোতে আছে নানা রকম মাছ। অতিথিরা চাইলে সে মাছ ধরতেও পারেন। জলাশয়গুলো তৈরির ফলে বেশ কিছু দ্বীপের সৃষ্টি হয়েছে অরুনিমার মাঝে। এসব দ্বীপে যাওয়ার জন্য তৈরি করা হয়েছে সুন্দর সুন্দর কাঠ আর বাঁশের সেতু।

জলাশয়গুলোর তীর ঘেঁষেই অরুনিমার বেশিরভাগ কটেজ। কটেজগুলোর অধিকাংশই গ্রামীণ আদলে তৈরি। কিন্তু ভেতরে আধুনিক সুযোগ সুবিধার সবটাই আছে। জলাশয়ের উপরেও আছে ভাসমান আধুনিক কটেজ। এখানে রাতযাপন ভিন্ন অভিজ্ঞতার সঞ্চার করবে।

অরুনিমার জলাশয়ে কিন্তু নৌকা নিয়ে ঘুরে বেড়ানোর ব্যবস্থাও আছে। নানা রকম খেলাধূলার ব্যবস্থা। ভেতরটা ঘুরে দেখার জন্য আছে রিকশা কিংবা ভ্যান। শিশুদের খেলাধূলারও নানান ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। রিসোর্টের এক কোনে গড়ে তোলা হয়েছে ‍সুন্দর একটি সুইমিং পুলও।

অরুনিমার জলাশয়ের উপরে কাঠেরে সেতু। ছবি: ট্রাভেল টক

বেশ কিছু বনভোজন কেন্দ্র আছে অরুনিমায়। আছে আধুনিক রেস্তোঁরা আর সভাকক্ষ। একটি ভাসমান রেস্তোঁরাও আছে। এ রেস্তোঁরার মূল আকর্ষণ এখানকার জলাশয়ের তাজা মাছ।

অরুনিমার মূল আকর্ষণ এতক্ষণে বলাই হয়নি। এটি মূলত পাখির একটি অভয়াশ্রম। শীত মৌসুমে নানা রকম পরিযায়ি পাখিরা অরুনিমাকে নিরাপদ আশ্রয় হিসেবে বেছে নেয়। সেসব পাখির বড় একটা অংশ আবার প্রায় সারা বছরই থেকে যায় জায়গাটিতে। অরুনিমার সর্ব পশ্চিমের জলাশয়টির ভেতরে ছোট্ট একটি দ্বীপের বড় বড় গাছগুলো তাই পাখপাখালিতে ভরপুর দেখা যায় প্রায় সারা বছরই। এছাড়া এখানকার পুরো জায়গাটিতেই দেশি পাখির কলকাকলিতে মুখর থাকে সবসময়।

অরুনিমায় যারা রাত যাপন করতে চান না তাদের জন্য এখানকার প্রকৃতিকে উপভোগ করার সুযোগ আছে। ১০০ টাকার টিকেট কিনে প্রবেশ করতে হয় এ রিসোর্টে। চাইলে টিকেট কেটে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ভেতরে অবস্থান করতে পারেন যে কেউ।

অরুনিমার আকাশে পরিযায়ী পাখিরা। ছবি: ট্রাভেল টক

কীভাবে যাবেন
ঢাকা থেকে সড়ক পথে নড়াইল এসে সেখান থেকে সহেজেই আসতে পারবেন। ঢাকার গাবতলি বাস স্টেশন থেকে হানিফ এন্টারপ্রাইজ, ঈগল পরিবহন ও সাদ সুপার ডিলাক্সের নন এসি বাস যায় নড়াইল। ভাড়া ৩০০-৩৫০ টাকা।

অরুনিমা রিসোর্টে প্রকৃতি প্রেমীরা। ছবি: ট্রাভেল টক

যোগাযোগ
গ্রাম: পানিপাড়া, থানা: নাড়াগাতি, জেলা নড়াইল।
ঢাকা কার্যালয়
বসতি রেইনবো, বাড়ি ৫৩, সড়ক ১, ব্লক আই, বনানী, ঢাকা-১২১৩
ফোন: ০১৯২২২৩৩৩১১, ০২৯৮৭১৫২৭

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *